ঢাকাবুধবার , ২২ নভেম্বর ২০২৩
  • অন্যান্য
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দেবিদ্বারে ভিক্টোরিয়া কলেজ বাসে হামলা, নগদ টাকা ও মোবাইল লুট

নিজস্ব প্রতিবেদক :
নভেম্বর ২২, ২০২৩ ২:০৪ অপরাহ্ণ । ২৫৬ জন

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীবাহী বাসের গতিরোধ করে শিক্ষার্থীদের মারধর, নগদ টাকা ও মোবাইল ছিনতাই এর ঘটনা ঘটেছে। ২১ নভেম্বর মঙ্গলবার বেলা ৩টায় কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের দেবিদ্বার ভিরাল্লা স্টেশন এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

এতে ক্ষুব্ধ হয় ভিক্টোরিয়া কলেজ শিক্ষার্থীরা। এসময় শিক্ষার্থীদের একজন গোপনে ভিডিও ধারণ করলে সেই ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

 

জানা যায়, কলেজ ফেরার পথে কংশনগর বাজার এলাকায় ভিক্টোরিয়া কলেজ বাসের ড্রাইভারের সাথে এক প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্টো গ ৪৯-০৮১৩) এর ড্রাইভারের তর্ক হয়। তর্কের এক পর্যায়ে বাসের ড্রাইভারকে মারতে আসলে শিক্ষার্থীরা বাঁধা দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রাইভেট কারের মালিক ও ১০/১২ জন বহিরাগত ব্যক্তি ভিরাল্লা এলাকার রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে কলেজ বাসটি আটকে দেয়। কিছু বুঝার আগেই তারা বাসে ডুকে শিক্ষার্থীদের মারধর শুরু করে। এ সময় দু’জন শিক্ষার্থীর মোবাইল, মানিব্যাগ হাতিয়ে নিয়ে যায় হামলাকারীরা। হামলার খবর পেয়ে দেবিদ্বার থানার দায়িত্বরত পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে হামলাকারীরা দ্রুত এলাকা ত্যাগ করে।

 

বুধবার ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা ছিনতাইকৃত মোবাইল, নগদ টাকা উদ্ধারসহ মারধরের উপযুক্ত শাস্তি চেয়ে দেবিদ্বার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগপত্রে স্থানীয় যুবক সাইদ, শিপন, রাসেলসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৮/১০ জন কে বিবাদী করা হয়।

এদিকে এলাকার স্থানীয়দের কাছে হামলাকারীরাদের বিষয়ে জানতে চাইলে ভয়ে কেউ মুখ খুলতে রাজি হননি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন জানায়, আমি ভিরাল্লা স্টেশনে যাওয়ার পথে ভিরাল্লা খান বাড়ির সামনে বাস আটকে গন্ডগোল করতে দেখেছি। রাস্তায় জ্যাম লাগার কারনে সেখানে গিয়ে বাস সাইডে রাখার অনুরোধ করে ছেলেগুলোকে বাস থেকে নামিয়ে দেই এবং ঘটনাস্থল ত্যাগ করি

হামলার শিকার ইসলামের ইতিহাস ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ বলেন, ছাত্রদের মারধরের পাশাপাশি তারা ছাত্রীদের গায়েও হাত তোলে। এসময় মেয়েরা চিৎকার শুরু করে। আমরা আতঙ্কিত হই।

ভিক্টোরিয়া কলেজ পরিবহণ কমিটির প্রধান, রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক রাজু আহাম্মদ বলেন,

অভিযোগের বিষয়টি আমরা যাচাই করে দেখছি। চালকের কোন ভুল আছে কিনা সেটাও তদন্ত করা হচ্ছে।

দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নয়ন মিয়া জানান, বিষয়টি জানার সাথে সাথে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। কিন্তু ততক্ষণে প্রাইভোট কারের লোকজন পালিয়ে যায়। বুধবার শিক্ষার্থীরা লিখিত অভিযোগ করেছে। গাড়ি নম্বরের সূত্র ধরে আমরা পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

 

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আবু জাফর খান জানায়, ভিক্টোরিয়া কলেজ শিক্ষার্থীদের সাথে এমন অপ্রীতিকর ঘটনা মেনে নেয়ার মতো না। ঘটনাটি জানার সাথে সাথে আমি কুমিল্লার পুলিশ সুপার কে জানিয়েছি। তিনি দেবিদ্বার থানার ওসিকে বিষয়টি অবগত করেছেন। এ নিয়ে তদন্ত চলছে।