ঢাকাবুধবার , ১৫ নভেম্বর ২০২৩
  • অন্যান্য
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কোম্পানীগঞ্জ বদিউল আলম উচ্চ বিদ্যালয় খেলার মাঠ তলিয়ে আছে পানির নীচে

দৈনিক কুমিল্লার ডাক
নভেম্বর ১৫, ২০২৩ ৪:৪৭ অপরাহ্ণ । ১১০ জন

মুরাদনগরে খেলার মাঠ না পেয়ে মোবাইল গেইম ও মাদকাসক্তির দিকে ঝুঁকছে যুবসমাজ।

মুরাদনগর উপজেলার কোম্পানী ঞ্জে নেই কোথাও খেলার মাঠ। মাঠের অভাবে বাড়ছে মোবাইল ও মাদকাসক্তির সংখ্যা। যুবকরা বিকেল বেলা যেখানে বল- স্ট্যাম্প , হাতে মাঠে খেলাধুলায় ব্যস্ত থাকার কথা ঠিক তখনই তারা পাবজি , টিকটক, ইন্টারনেটে লুড়–র জোয়া, ক্রাইমসিন, ফোনআলাপ, আর পর্ণ মুভিতে ডুবে থাকেন। সম্ভাবনাময় তরুন যুবকরা জড়িয়ে পড়ছে নানা অপকর্মে। এর প্রভাব পড়ছে পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের উপর।

মনোচিকিৎসকরা জানান, “ গৃহবন্দি জীবনের কারণে অনেক শিশু-কিশোর মানসিক রোগে ভুগছেন। মধ্যবয়স্কদের মাঝেও বাড়ছে হতাশা শারিরিক – মানসিক অশান্তি। তাই সুস্থ থাকার জন্য খেলাধুলা ও ব্যায়ামের বিকল্প কিছু নাই ”। আর এই খেলাধুলার জন্য প্রয়োজন একটি উন্মোক্ত মাঠ। মাঠের অভাবে শিশু-কিশোরদের মধ্যে নানা ধরনের শারিরিক , মানসিক প্রতিবন্ধকতা ও চারিত্রিক অবক্ষয় দেখা দিচ্ছে।

সরেজমিনে ঘুরে জানা যায়, কোম্পানীগঞ্জ বদিউল আলম ডিগ্রি কলেজের পিছনে খেলার মাঠটিতে ২০০৭ সালে ‘সুপার মার্কেট’ নির্মাণ করেন কলেজ কর্তৃপক্ষ। এরপর থেকে আর কোন মাঠের মুখ দেখেনি কোম্পানীগঞ্জসহ আশে পাশের ১০ গ্রামের মানুষ।
এদিকে কোম্পানীগঞ্জ বদিউল আলম উচ্চ বিদ্যালয়ের নামে একটি খেলার মাঠ থাকলেও এটি অকেজো হয়ে পড়ে আছে প্রায় দেড় যুগের বেশি সময়। ১২ মাস ওই স্কুলমাঠে মাছ চাষ করেন স্থানীয় এক ব্যবসায়ী। মাঠটি উত্তর ত্রিশ গ্রামে সাবেক লাকী সিনেমাহলের পশ্চিমে অবস্থিত।

কোম্পানীগঞ্জ বদিউল আলম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মফিজ উদ্দিন জানান, “ ৮৮ শতক জায়গার উপর স্কুলের নামে একটি মাঠ আছে মাঠের তিন দিকে বাড়ি একদিকে সড়ক হওয়ায় বৃষ্টি হলেই সারা বছর মাঠে পানি জমে থাকে। একারণে বার্ষিক খেলা-ধুলা শরীর চর্চায় স্কুলের ছেলে-মেয়েরা অংশ নিতে পারে না। মাঠটি উচু করে খেলা -ধুলার উপযোক্ত করে দিতে আমি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এমপি স্যারের নিকট আবেদন করেছি। শুধু মাটি ভরাটের কাজ করলেই মাঠটি ব্যবহারের উপযোক্ত হয়ে উঠবে।

এবিষয়ে নবীপুর পশ্চিম ইউপি চেয়ারম্যান ভিপি জাকির হোসেন বলেন, কোম্পানীগঞ্জ এলাকায় একটি মাঠের খুব প্রয়োজন। মাঠের অভাবে ছেলেরা বে-পথে চলে যাচ্ছে। স্কুল মাঠটিতে সারাবছর পানি জমে থাকে। মাঠটি ভরাটের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।